1. mti.robin8@gmail.com : Touhidul islam Robin : Touhidul islam Robin
  2. newsnakshibarta24@gmail.com : Mozammel Alam : Mozammel Alam
  3. nakshibartanews24@gmail.com : nakshibarta24 :
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন
২১শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনামঃ
বৃত্তিলাভে দোয়া কামনা লাকসামে জামেয়া ইসলামীয়া জমীরিয়া নাছিরুল উলূম মাদ্রাসার শুভ উদ্বোধন পথশিশুদের নিয়ে রেলওয়ে জংশনে মানবিক সংগঠন মায়ার পাঠশালা শুরু মানুষের হৃদয়ে আজও অম্লান ভাষা সৈনিক আবদুল জলিল সাবেক রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক এমপিকে চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান মাদক কারবারিরা সমাজের বিষফোঁড়া : আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় মুজিবুল হক এমপি চৌদ্দগ্রাম মডেল কলেজে পিঠা উৎসব নির্বাচিত হলে স্বল্প সময়ের মধ্যে অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করবো : মুজিবুল হক চৌদ্দগ্রামে সোনালী সমাজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ লাকসামে সাংবাদিকদের সাথে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলামের মতবিনিময়

৫ মাস পর খুলছে বান্দরবানের পর্যটন স্পট

  • প্রকাশকালঃ বৃহস্পতিবার, ২০ আগস্ট, ২০২০
  • ৩২২ জন পড়েছেন

নকশী বার্তা ডেস্ক : দীর্ঘ পাঁচ মাস পর পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় বান্দরবানের সব ট্যুরিস্ট স্পট এবং আবাসিক হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট খুলে দেয়া হচ্ছে শুক্রবার ২১ আগস্ট থেকে। আজ বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে জেলা প্রশাসক মো. দাউদুল ইসলাম এ ঘোষণা দেন।

এ সময় বান্দরবান পৌরসভার মেয়র মো. ইসলাম বেবী, অতিরিক্ত পুলিশ রেজা সরোয়ার, আবাসিক হোটেল মোটেল মালিক সমিতির সভাপতি অমল কান্তি দাস, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, ট্যুরিস্ট পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নাছিরুল আলমসহ সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রশাসন ও পর্যটন সংশ্লিষ্টরা জানান, করোনাভাইরাসের প্রভাবে চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে বান্দরবান জেলায় শতাধিক ছোট-বড় আবাসিক হোটেল, মোটেল, রিসোর্ট ও গেস্ট হাউস দীর্ঘ পাঁচ মাস ধরে একটানা বন্ধ ছিল। তালা ঝুলানো অবস্থায় ছিল দর্শনীয় স্থান মেঘলা, নীলাচল, চিম্বুক, নীলগিরি, প্রান্তিক লেক, স্বর্ণমন্দির, নীলদিগন্ত, বগা লেক, ন্যাচারাল পার্কসহ সব পর্যটন স্পট। পর্যটন শিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হস্তশিল্প, স্থানীয়দের ঐতিহ্যগত বৈচিত্র্যময় কোমর তাঁতের পোশাক-কাপড়ের ব্যবসা বাণিজ্যগুলো গত মাসে খুলে দিলেও পর্যটক না থাকায় বেচাকেনা ছিল না। প্রায় দুই শতাধিকের বেশি ট্যুরিস্ট গাড়িও বন্ধ ছিল দীর্ঘদিন। তবে সম্প্রতি পরিবহন, রেস্টুরেন্ট ও অন্যান্য দোকান খুলে দিলেও ব্যবসা বাণিজ্যগুলো পর্যটননির্ভর হওয়ায় জমে উঠেনি। পর্যটকশূন্য পর্যটননগরী বান্দরবান জেলাটি যেন প্রাণহীন ছিল দীর্ঘ পাঁচ মাস। তবে সব পর্যটন স্পট এবং আবাসিক হোটেল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্তে স্বস্তি ফিরেছে পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের মাঝে।

অপার সম্ভাবনাময় বান্দরবানের দর্শনীয় ট্যুরিস্ট স্পট মেঘলা, নীলাচল, চিম্বুক, নীলগিরি, প্রান্তিক লেক, স্বর্ণমন্দির, নীলদিগন্ত, ন্যাচারাল পার্ক, পাহাড়ের চূড়ায় রুমায় অবস্থিত রহস্যময় প্রাকৃতিক বগা লেক, দেশের পর্বতশৃঙ্গ ক্যাংক্রাডং, বিজয় পাহাড় চূড়া, রিজুক ঝর্ণা, তিনাফ সাইতার ঝর্ণা, জাদীপাই ঝর্ণা, থানচির নীলদিগন্ত, রেমাক্রী, নাফাকুম ঝর্ণা, অমিয়কুম ঝর্ণা, বাদুরগুহা, বড়পাথর, দেবতা পাহাড়, আলীকদমের দামতোয়া ঝর্ণা, পোয়ামুহুরী ঝর্ণা, আলীর সুরঙ্গপথ, রোয়াংছড়ির দেবতাকুম, শীলবাঁধা ঝর্ণা, শিপ্পি পাহাড় চূড়া, রামজাদী বৌদ্ধমন্দির, লামার মিরিঞ্জা পর্যটন স্পট, নাইক্ষ্যংছড়ি উপবন পর্যটন স্পট, কুমির খামার, সদরের শৈলপ্রপাত ঝর্ণা, আমতলী ঝর্ণা, ঝুরঝুড়ি ঝর্ণা বা রূপালী ঝর্ণা, জলপ্রপাতের মতো দৃষ্টিনন্দন দর্শনীয় স্থানগুলো খুলে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রশাসন। আগামী ২১ আগস্ট শুক্রবার থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভ্রমণপিপাসু পর্যটক এবং স্থানীয় দর্শনার্থীদের জন্য পর্যটন শিল্পের সব দুয়ার খুলে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে জেলা প্রশাসক।

বান্দরবান আবাসিক হোটেল-মোটেল রিসোর্ট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, পর্যটনের সঙ্গে এ অঞ্চলে সার্বিক অর্থনীতি জড়িত। শুধুমাত্র আবাসিক হোটেল মোটেল নয়, পর্যটকনির্ভর এই অঞ্চলের সবধরনের ব্যবসা বাণিজ্যও এর সঙ্গে সম্পৃক্ত। দীর্ঘ দিন সবকিছু বন্ধ থাকায় অর্থনৈতিকভাবে বিপর্যস্ত এই অঞ্চলের সর্বস্তরের মানুষ। তবে পর্যটন স্পট এবং আবাসিক হোটেলগুলো ২১ আগস্ট থেকে খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা পর্যটন শিল্পনির্ভর পাহাড়ের অর্থনীতির চাকাটি ঘুরাতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

ইতোমধ্যে খুলে দেয়ার ঘোষণায় আবাসিক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা এবং ধুয়া-মুছার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন সংশ্লিষ্টরা। ফিরতে শুরু করেছেন ছাঁটাই এবং অঘোষিত ছুটিতে থাকা শ্রমিক-কর্মচারীরাও।

ট্যুরিস্ট পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নাছিরুল আলম বলেন, দীর্ঘ পাঁচ মাস পর্যটন স্পটগুলো বন্ধ থাকায় ট্যুরিস্ট গাড়িগুলোর শ্রমিকরা মানবেতন জীবন কাটাচ্ছেন। খেয়ে না খেয়ে অলস সময় কাটাচ্ছেন শ্রমিক পরিবারগুলো। শুক্রবার থেকে সব পর্যটন স্পট পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। এ সিদ্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পরিবহন শ্রমিকরা ট্যুরিস্টদের বিনোদন কেন্দ্রগুলো ভ্রমণে সর্বাত্মক সেবা দেবেন।

রেস্টুরেন্ট মালিক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক রফিকুল আলম ও বার্মিজ মার্কেটের ঐতিহ্যগত পোশাক-অলঙ্কার ব্যবসায়ী দিপীকা তঞ্চঙ্গ্যা বলেন, মূলত এ অঞ্চলের সব ব্যবসা বাণিজ্য পর্যটকনির্ভর। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর রেস্টুরেন্ট ও দোকানপাটগুলো খুলে দিলেও পর্যটক না থাকায় কোনো বেচা-বিক্রি ছিল না। শুক্রবার থেকে পর্যটন স্পট এবং আবাসিক হোটেল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ায় সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। পর্যটকদের আগমন ঘটবে বেচা-বিক্রিও শুরু হবে।

এ বিষয়ে বান্দরবানের জেলা প্রশাসক মো. দাউদুল ইসলাম বলেন, পর্যটন সংশ্লিষ্ট সভায় শুক্রবার ২১ আগস্ট থেকে সব পর্যটন স্পট এবং আবাসিক হোটেল, মোটেল, রিসোর্টগুলো খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মানতে ভ্রমণপিপাসু পর্যটক এবং পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী-কর্মচারীদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি না মানলে অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খবরটি সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

বিজ্ঞাপন

Laksam Online Shop

first online shop in Laksam

© All rights reserved ©nakshibarta24.com
কারিগরি সহায়তায় বিডি আইটি হোম