1. mti.robin8@gmail.com : Touhidul islam Robin : Touhidul islam Robin
  2. newsnakshibarta24@gmail.com : Mozammel Alam : Mozammel Alam
  3. nakshibartanews24@gmail.com : nakshibarta24 :
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:০৮ অপরাহ্ন
৯ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনামঃ
মানুষের হৃদয়ে আজও অম্লান ভাষা সৈনিক আবদুল জলিল সাবেক রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক এমপিকে চৌদ্দগ্রাম প্রেসক্লাবের ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান মাদক কারবারিরা সমাজের বিষফোঁড়া : আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় মুজিবুল হক এমপি চৌদ্দগ্রাম মডেল কলেজে পিঠা উৎসব নির্বাচিত হলে স্বল্প সময়ের মধ্যে অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করবো : মুজিবুল হক চৌদ্দগ্রামে সোনালী সমাজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ লাকসামে সাংবাদিকদের সাথে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলামের মতবিনিময় ব্যালটের মাধ্যমে ষড়যন্ত্রকারীদের জবাব দেবে জনগণ : মুজিবুল হক স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা ভোট দিন- স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম  চৌদ্দগ্রামে বছরের শুরুতে বই পেয়ে উচ্ছাসিত শিক্ষার্থীরা

হালুয়াঘাটে লাইসেন্স ছাড়া গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবসা

  • প্রকাশকালঃ সোমবার, ১১ জানুয়ারি, ২০২১
  • ১৬৯ জন পড়েছেন

হালুয়াঘাট প্রতিনিধি : হালুয়াঘাটে লাইসেন্স ও ছাড়পত্র ছাড়াই বিক্রি হচ্ছে তরল পেট্রোলিয়াম (এলপি) গ্যাসের সিলিন্ডার। পান-সিগারেট, মুদিদোকান, ফ্ল্যাক্সিলোড, হাডওয়্যারের দোকান এমনকি ফুটপাতেও বিক্রি হচ্ছে এলপি গ্যাস সিলিন্ডার। ফলে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী জ্বালানি কাজে ব্যবহার্য সিলিন্ডার গ্যাস বিক্রিতে ট্রেড লাইসেন্স ছাড়াও বিস্ফোরক অধিদপ্তরের লাইসেন্স ও অগ্নিনির্বাপক কর্তৃপক্ষের ছাড়পত্র নেওয়ার বাধ্যবাধকতা আছে। কিন্তু মানা হচ্ছে না কোনো নিয়মনীতি। কোনো নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা ও লাইসেন্স ছাড়াই উপজেলা জুড়ে ঝুঁকি নিয়ে চলছে সিলিন্ডার গ্যাস ব্যবসা। প্রশাসনের কোন ধরনের কার্যকর ভূমিকা না থাকায় লাইসেন্সবিহীন গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবসা বাড়ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার পৌর শহরসহ ১২ টি ইউনিয়নের বাজার ছাড়াও অলি-গলিতে এখন গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবসা চলছে। এসব গ্যাসের সিলিন্ডার ট্রাকযোগে পৌঁছে দোকানে। ট্রাক থেকে ছুড়ে ফেলে গ্যাস সিলিন্ডার নামানো হয়। এতেও যে কোন সময় ঘটতে পারে বিস্ফোরণের ঘটনা।

খুচরা বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তাদের বেশির ভাগই আইন সম্পর্কে অবগত। তারপরও তদারকির অভাবে ঝূঁকি জেনেও তারা সনদ ও অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছাড়াই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে লাইসেন্সপ্রাপ্তির দীর্ঘসূত্রতা এড়াতে এবং বিভিন্ন কোম্পানির ডিলারদের বিপণন কৌশলে প্ররোচিত হয়ে তারা এই ঝুকিপূর্ণ ব্যবসা পরিচালনা করছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক কবি জালাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী, সেবাগ্রহীতার জীবন বা নিরাপত্তা বিপন্ন হতে পারে এমন কোনো কাজ করলে কারাদণ্ড বা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হওয়ার বিধান রয়েছে। এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডার মজুদ ও বিক্রি করতে বিস্ফোরক লাইসেন্স নেয়া বাধ্যতামূলক।

হালুয়াঘাট ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের (ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার) শফিকুল ইসলাম বলেন, গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি করতে হলে অবশ্যই ফায়ার সার্ভিসের ছাড়পত্র লাগবে। হালুয়াঘাটের কোন এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের দোকানদাররা লাইসেন্স নিয়েছেন কিনা আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে জানতে হালুয়াঘাট ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের লাইসেন্স পরির্দশক মাহাবুব আলম সিদ্দিকীর মুঠোফোনে বারবার কল করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম বলেন, বিস্ফোরক লাইসেন্স ছাড়া এবং অনুমোদনহীন অবৈধ গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রির বিরুদ্ধে শিগগিরই ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খবরটি সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

বিজ্ঞাপন

Laksam Online Shop

first online shop in Laksam

© All rights reserved ©nakshibarta24.com
কারিগরি সহায়তায় বিডি আইটি হোম