1. mti.robin8@gmail.com : Touhidul islam Robin : Touhidul islam Robin
  2. newsnakshibarta24@gmail.com : Mozammel Alam : Mozammel Alam
  3. nakshibartanews24@gmail.com : nakshibarta24 :
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন
৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাবেক পৌর চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল খাঁনের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

  • প্রকাশকালঃ শনিবার, ১০ জুন, ২০২৩
  • ৩২১ জন পড়েছেন

মোজাম্মেল হক আলম, লাকসাম :

লাকসামে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, সাবেক পৌরসভার চেয়ারম্যান, বীরমুক্তিযোদ্ধা মরহুম মোস্তফা কামাল খাঁনের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ (১০জুন) শনিবার। তিনি ২০০৭ সালের এই দিনে ৬৭বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন। এর আগে মরহুম মোস্তফা কামাল খাঁন লাকসাম পৌরসভার চেয়ারম্যান হিসেবে ৯বছরের অধিক সময় দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি তিনি মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দানকারী আওয়ামীলীগের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বও পালন করেন। মরহুম মোস্তফা কামাল খাঁনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কবর জিয়ারত, দোয়া-মিলাদ সহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে।
মরহুম মোস্তফা কামাল খাঁন ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক হিসাবে তিনি সাবেক বৃহত্তর লাকসাম অঞ্চলের মনোহরগঞ্জের বাদুয়াড়া ক্যাম্পের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি লাকসাম জংশনে আরএনবি অফিসের কন্ট্রোল রুম থেকে লাকসামের মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মরহুম আবদুল আউয়াল, নজির আহমেদ ভূঁইয়া, জালাল আহমেদ, হাজী আলতাফ আলী, মুক্তিযোদ্ধা প্লাটুন কমান্ডার আবুল হোসেন ননীসহ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীদের প্রতিরোধ করেন।
সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ মরহুম মোস্তফা কামাল খাঁন তৎকালীন লাকসামকে জেলা বাস্তবায়ন দাবিও জানিয়েছিলেন। লাকসাম পৌরসভার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করতে লাকসাম এসেছিলেন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান (সাবেক স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী)। মোস্তফা কামাল খান লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে জিল্লুর রহমানকে স্মারকলিপি দিয়েছিলেন। বক্তব্যে জিল্লুর রহমান ভবিষ্যত যে কোন সময়ে লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছিলেন।

১৯৯১ সালের নির্বাচন পূর্ববর্তী সময়ে লাকসামে এসেছিলেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্বাচনী জনসভায় তখনও লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছিল তিনি। বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও লাকসামকে জেলা বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছিলেন।
মরহুম মোস্তফা কামাল খাঁন মৃত্যুর দীর্ঘ বছরেও সবার হৃদয়ে একজন ভালো মানুষ হিসেবে পরিচিত আছেন। তার কাছে কেউ বিচার নিয়ে আসলে থানায় আর মামলা করতে হতো না। তিনি সবার হৃদয়ে একজন ন্যায় বিচারক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত ও পরিচিত ছিলেন। তিনি সবার সব সমস্যার সমাধান করে দিতেন বলেই সবার কাছে প্রিয় ছিলেন। রাজনৈতিক, সামাজিক অঙ্গনেও তাঁর অবদান ছিল অপরিসীম। এছাড়াও অনেক গুণের অধিকারী ছিলেন তিনি। রাজনৈতিক ও সামাজিক অঙ্গনে তিনি ব্যাপক প্রশংসিত ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে তিনি ছিলেন এক নিবেদিত প্রাণ।

খবরটি সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

বিজ্ঞাপন

Laksam Online Shop

first online shop in Laksam

© All rights reserved ©nakshibarta24.com
কারিগরি সহায়তায় বিডি আইটি হোম