1. mti.robin8@gmail.com : Touhidul islam Robin : Touhidul islam Robin
  2. newsnakshibarta24@gmail.com : Mozammel Alam : Mozammel Alam
  3. nakshibartanews24@gmail.com : nakshibarta24 :
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন
৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চৌদ্দগ্রামে ইব্রাহিম খলিলের মৃত্যু রহস্য উদঘাটনের দাবিতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

  • প্রকাশকালঃ মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৮২ জন পড়েছেন

আবদুর রউফ, চৌদ্দগ্রাম কুমিল্লা:

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের উজিরপুর ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে গত শনিবার (১১ নভেম্বর) সকালে বাড়ীর পাশের ধানক্ষেত থেকে ইব্রাহিম খলিল (৩৫) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। নিহত ইব্রাহিম খলিলের মৃত্যু রহস্য উদঘাটনের দাবিতে সোমবার (২০ নভেম্বর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলন করে পরিবারের লোকজন। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহত ইব্রাহিম খলিলের স্ত্রী মোসা: রাবেয়া আক্তার।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘বিগত ১০-১২ বছর ধরে আমার স্বামী ইব্রাহিম খলিল ও তার পরিবারের লোকজনের সাথে প্রতিবেশী রফিকুল ইসলাম, শাহআলম ও মীর হোসেন গংয়ের সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো। বিষয়টি নিয়ে উভয়পক্ষের আদালতে কমপক্ষে ২টি মামলা চলমান রয়েছে। চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আমার স্বামী ইব্রাহিম খলিল প্রতিবেশী আবুল হাশেম, তার ছেলে হুমায়ুন কবির, একই এলাকার মৃত আব্দুল মমিনের ছেলে শাহআলম ও জহির মিয়ার বিরুদ্ধে থানায় একটি অভিযোগ (এসডিআর নং-৩০০/২৩) দায়ের করেন। গত ১০ নভেম্বর (শুক্রবার) রাত আনুমানিক ১টায় আমার স্বামী ইব্রাহিম খলিল শিবের বাজার এলাকার ভাতিজা মো: হাসানের বৌ-ভাতের অনুষ্ঠান শেষে বাড়ী ফিরে এসে আমাকে বলে, যে জমি নিয়ে আমাদের বিরোধ চলছে, সেখানে প্রতিপক্ষ রফিকুল ইসলাম সহ ৫-৬ জন লোক ঘুরাঘুরি করছে। আমাকে এখনই সেখানে যেতে হবে। একথা বলে সে প্রতিদিনের মতো মাছ ধরতে বের হয়ে যায়। এরপর সে রাতে আর ফিরে আসেনি। পরদিন সকালে আমাদের বাড়ীর পাশের ধানক্ষেতে ইব্রাহিম খলিলের লাশ দেখতে পেয়ে প্রতিবেশী আব্দুল খালেকের স্ত্রী হাসিনা বেগম আমাদেরকে জানায়। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে আমার স্বামীর লাশ উপুড় হয়ে পড়ে থাকতে দেখে। তাৎক্ষনিক আমরা তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসি। পরে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসককে খবর দিলে তিনি এসে ইব্রাহিম খলিলকে মৃত ঘোষনা করেন। স্থানীয়দের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের একটি টিম আমাদের বাড়ীতে আসে। পরে লাশ উদ্ধার করে তারা থানায় নিয়ে যায় এবং ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করে। ঘটনার পরদিন রোববার ময়নাতদন্ত শেষে থানা প্রশাসন পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করলে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।’

রাবেয়া আক্তার আরো বলেন, ‘আমি আশঙ্কা প্রকাশ করছি, সম্মত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে রফিকুল ইসলাম গং পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আমার স্বামী ইব্রাহিম খলিলকে হত্যা করে লাশ ধানক্ষেতে রেখে চলে যায়। উল্লেখ্য, ইব্রাহিম খলিল নিহত হওয়ার পর থেকে সন্দেহভাজন রফিকুল ইসলাম গং এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। অদ্যবদি তাদের কাউকেই এলাকায় দেখা যাচ্ছে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমার স্বামীর মৃত্যু শোকে আমরা কাতর থাকায় থানা কর্তৃপক্ষ কর্তৃক তৈরীকৃত লিখিত কাগজ পড়ে না দেখে সরল বিশ্বাসে সে কাগজে স্বাক্ষর করে দেই। পরবর্তীতে জানতে পারি, আমার স্বামীর মৃত্যুর বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। আমি এ সংবাদ সম্মেলন থেকে জোর গলায় বলছি, আমার স্বামীর অপমৃত্যু হয়নি। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষীদের শাস্তির জোর দাবি জানাচ্ছি।’ এ সময় তিনি সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ইব্রাহিম খলিলের মৃত্যু রহস্য উদঘাটন করে প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় আনার জন্য সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিনীত আহবান জানান।

এর আগে চৌদ্দগ্রামের উজিরপুর ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে বাড়ীর পাশের ধানক্ষেত থেকে ইব্রাহিম খলিল (৩৫) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সে একই গ্রামের মৃত আলী মিয়া বেপারীর ছেলে। পরিবারের দাবির প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করে পুলিশ। জানা গেছে, গত শুক্রবার (১০ নভেম্বর) দিবাগত রাত আনুমানিক ১টায় গ্রামের একটি বিয়ে বাড়ী থেকে এসে ইব্রাহিম খলিল মাছ শিকারের উদ্দেশ্যে বাড়ীর বাহিরে যান। এরপর তিনি আর ঘরে ফিরে আসেননি। সকালে পাশের বাড়ীর আব্দুল খালেক এর স্ত্রী হাসিনা বেগম হাঁটতে বের হলে রাস্তার পাশের ধানক্ষেতে ইব্রাহিমের লাশ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দিলে বাড়ীর লোকজন বের হয়ে তাকে উদ্ধার করে। স্থানীয়রা শিবের বাজারের অহিদ ডাক্তারকে ডেকে আনলে তিনি তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রেকর্ড হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন চৌদ্দগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ত্রিনাথ সাহা। এ বিষয়ে থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক নাজিম উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের পর স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর কারণ সহ বিস্তারিত জানা যাবে।’

খবরটি সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

বিজ্ঞাপন

Laksam Online Shop

first online shop in Laksam

© All rights reserved ©nakshibarta24.com
কারিগরি সহায়তায় বিডি আইটি হোম